Sunday, 13 April 2014

পেন্সিল শার্পনার

-দোস্ত তোর নতুন পিএ মেয়েটা ত হেভি মাল।
- তোর ভালো লাগছে।
- কইলাম না, কঠিন চিজ। যা ফিগার... মাই গড। অফিসে এমন কড়া জিনিস পাইলি কই ?
- এই ত নতুন আসছে।
-আমার পি এ টা একটা বুড়াভাম। তুই ত শালা ভালা ফস্টি নস্টি করার সুযোগ পাইলি।
- ফস্টি নস্টির সুযোগ নাই। এইটা একটা রোবট।
- তাই নাকি?

- হ! দাড়া তোকে এনে দেখাই। ইন্টারকমে বলল, লিলি আমার রূমে আসো একটু। লিলি আসল।
-দোস্ত, এর পেট এ ছোট একটা ফ্রিজ আছে। পিঠে একটা শ্রেডার মেশিন আছে। এর বডিতে প্রিন্টার , তিন টেরা হার্ড ডিস্ক আর যাবতীয় অফিস সামগ্রী আছে।
- ভালো ত। দোস্ত, আমারে দুই দিনের জন্য ধার দে। ইউজ (!) কইরা দেখি।
-আচ্ছা নে। লিলি, তুমি আগামী দুইদিন আমার দোস্তের সাথে কাজ করবা।
দোস্ত আর রোবট লিলি বের
হয়ে গেল। পাঁচমিনিট পরই শোনা গেল দোস্তের গগনবিদীর্নকারী চিৎকার,
শীট !! প্রথম বন্ধু মাথা নাড়তে নাড়তে বলল ।
লিলির পেন্সিল শার্পনারটা কোন জায়গায় সেইটাই তো দোস্তকে বলা হয় নাই.

No comments:

Post a Comment