Sunday, 24 August 2014

মেয়েদের মনের কথা বোঝা

একজন লোক ন্যাশনাল হাইওয়ে ধরে তার নতুন কেনা হার্লে-ডেভিডসন মোটরসাইকেল চালিয়ে যাচ্ছিলো। হঠাৎ করে মাথার ওপর কালো মেঘ জমে উঠলো আর তার মাঝখান থেকে দৈববাণী শোনা গেলো।
ভগবান বললেন, "তুমি এই কলিকালেও ভগবানে বিশ্বাস রেখে ভালো কাজ করেছো। তাই আমি তোমাকে একটা বর দিতে চাই।"
মোটরসাইকেলের আরোহী, আমাদের বান্টা সিং, বাইকটাকে রাস্তার সাইডে নিয়ে থামিয়ে বললো, "ভগবান, আপনি তাহলে একটা এক্সপ্রেস হাইওয়ে বানিয়ে দিন, যাতে করে আমি যেকোন সময় কলকাতা থেকে দিল্লী বাইক চালিয়ে চলে যেতে পারি।"
ভগবান বললেন, "তোমার এই প্রার্থনা থেকে লোকের কি লাভ হবে? ভাবোতো, এরকম একটা এক্সপ্রেসওয়ে তৈরী করতে কতখানি কাঁচামাল লাগবে, কতো গাছ, বন-জঙ্গল কাটতে হবে, কতো লোকের ঘরবাড়ি ভেঙ্গে সরাতে হবে। আমি এটা বানিয়ে দিতেই পারি। কিন্তু আমি তোমাকে আরো একটু ভেবে বলতে বলবো। এমন একটা কিছুর প্রার্থনা করো যার ফলে পুরো সমাজের উপকার হয়।"
বান্টা বেশ কিছুক্ষণ ভেবে বললো, "হ্যাঁ ভগবান, আপনি ঠিকই বলেছেন। আমি চাই যে পৃথিবীর সব পুরুষেরা যেনো মেয়েদের মনের কথা, মনের ভাব বুঝতে পারে। যখন মেয়েরা মুখে কিছু একটা বলে, আর ভেতরে ভেতরে অন্য কিছু ভাবে, তখন আমরা যেনো ওদের মনের ইচ্ছেটা বুঝতে পারি আর মেয়েদের যেনো সত্যিকারের সুখী করতে পারি।"
ভগবান একটা দীর্ঘশ্বাস ফেলে জবাব দিলেন, "বান্টা সিং, বলোতো ঐ এক্সপ্রেসওয়েতে ক'টা লেন চাও। দুটো, না চারটে?"
অর্থাৎ মেয়েদের মনের কথা বোঝা ভগবানেরও অসাদ্ধ।

No comments:

Post a Comment